দিল্লী ট্রাভেল গাইড

ভারতের রাজধানী দিল্লী ভারতে ভ্রমণীয় স্থানসমূহের মধ্যে অন্যতম প্রধান স্থান। ‘দিল্লী’ শব্দটি ধিল্লিকা শব্দ থেকে এসেছে যার অর্থ মধ্যযুগের প্রথম শহুরে ব্যবস্থা। মেহরাউলি দিল্লীর দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্তে অবস্থিত। এটাও দেহালি বা দিল্লি নামকরণের কারণ। অন্য একটি নাম হলো যোগিনীপুরা একজন মহিলা ধার্মিকার নামের সাথে যুক্ত যিনি একসময় এখানে বাস করতেন।

জায়গাটির প্রাচীন শহুরে অবস্থান সম্পর্কেও জানা যায় যার নাম ইন্দ্রপ্রসাতা এবং এর অবস্থান ছিল যমুনার তীরে। ধারনা করা হয় ভারতীয় মহাকাব্য মহাভারতের রূপকথার বীর পান্ডব ভ্রাতাদের দ্বারা এটা প্রতিষ্ঠিত হয়। ছোট শহর পুরান কিল্লার খননকাজের মাধ্যমে জানা যায় দিল্লীর প্রাচীন শহুরে জীবনযাপনের কথা যার অস্তিত্ব ছিল খৃস্টপূর্ব তৃতীয় ও চতুর্থ শতকে।

বিশালায়তনের শহর দুইভাগে বিভক্ত হয়ে এক অংশ পুরাতন অংশে অপর অংশ নতুন অংশে পড়েছে। পুরাতন অংশ শহরের প্রাচীন অংশ যেখানে একসময় ১২ শতক থেকে ১৯ শতক পর্যন্ত মুসলিম শাসকদের রাজধানী ছিল। এখানে প্রাচীন পুরাতন দুর্গ, মসজিদ এবং বিভিন্ন স্মৃতিসৌধ রয়েছে। নতুন দিল্লী শহরের নতুন অংশ যেটা বৃটিশরা প্রতিষ্ঠা করে গিয়েছে। বৃটিশ শাসন একে একটি ভিন্ন অবয়ব দান করেছে নতুন নতুন আধুনিক ভবন ও অবকাঠামো নির্মানের মাধ্যমে। এইভাবে দিল্লি সড়কপথে বা বিমানপথে ভ্রমণের একটা কেন্দ্রবিন্দু এবং প্রবেশ দ্বারে পরিনত হয়েছে।

Social Media