হুয়া হিন ইতিহাস

হুয়া হিন থাইল্যান্ডের সবচেয়ে পুরাতন সৈকত নিবাস যা ১৯২০ সালে উন্বুক্ত হয় এবং সামাজিক ক্ষেত্রে কুশলীদের সাহায্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করে। রেল লাইনের সাথে সংযুক্তির দ্বারা এটাকে জনপ্রিয় করার ব্যাপারে গ্যারান্টি ছিল। হুয়া হিনের রাজ সম্পর্ক এর প্রকৃতিতে ফুটে উঠেছে। এখানে এখনও দাপ্তরিক রাজকীয় নিবাস রয়েছে ক্লাই কাংওয়ন প্রাসাদে। রাজা রামা অষ্টম এখানে গ্রীষ্ম নিবাস নির্মান করেন। তারপর ১৯২৮ সালে তিনি ক্লাই কাংওয়ান প্রাসাদ নির্মান করেন।

এই প্রমোদ নিবাসে ১৮ হোলের গল্ফ কোর্স ও কাঠের তাঁবু রয়েছে মাছ শিকারের জন্য। ১৯২৩ সালে নির্মিত রেলওয়ে হোটেল হুয়া হিনকে আলাদা আকর্ষণ দান করেছে। পর্যটকদের মধ্যে যারা নিয়মিত এখানে আসা যাওয়া করতেন সমুদ্র সৈকতের কাছাকাছি নিজস্ব আবাস গড়ে নেন যেখানে তাদের উইকেন্ড কাটাতে সুবিধা হতো। এখানকার আরও মজাদার বিষয় হলো তাজা সমুদ্র খাদ্য, কেনাকাটা আর অবসর কাটানো। যা মানুষকে ছুটি কাটানোর সম্পূর্ণ আনন্দ দান করে।

Social Media