চিয়াং মাই ভ্রমণ নির্দশিকা

১২৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত চিয়াং মাই থাইল্যান্ডের প্রধান উত্তরাঞ্চলীয় শহর। এটা ব্যাংকক থেকে ৭০০ কি.মি. দুরে অবস্থিত। সাগর থেকে ৩০০ মিটার উঁচু চিয়াং মাই হিমালয়ের পাহাড় দ্বারা বেষ্টিত। এখানকার বনে এখনও হাতি দ্বারা কাজ হয় । সুন্দর জলপ্রপাত, গুহা, গিরিসঙ্কট, বেষ্টিত বাগান সেইসাথে প্রচুর বৃক্ষরোপন চিয়াং মাই এ একটা সুন্দর বিস্তৃত ভূ-চিত্র তৈরী করেছে।

চিয়াং মাই লান না থাই এর রাজধানী ছিল, এখানে দশ লক্ষ ধান ক্ষেত্র রয়েছে। এটা ছিল প্রথম স্বাধীন রাজ্য যাকে গোল্ডেন ট্রায়াঙ্গল বলা হয়। এটা ১৫৫৬ সাল পর্যন্ত একটা সফল ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক এবং ব্যবসা-বানিজ্যের্ত কেন্দ্র ছিল । বার্মা এখানে আগ্রাসন চালায়। ১৭৭৫ সালে বার্মিজদের হটিয়ে দিয়ে থাইরা একে থাইল্যান্ডের অবিচ্ছেদ্দ অংশে পরিণত করে। বিভিন্ন উতসব, ১৩০০ শতকের মন্দির, সুন্দর দৃশ্য, চমতকার ফলমুল যেমন আপেল, পীচ এবং স্ট্রবেরী, শীতল আবহাওয়া এবং সুন্দর রমনীদের দেখলে মনে হবে এটা শাংগ্রী লা।

ব্যাংকক থেকে চিয়াং মাই ভ্রমণে বরাবরই একটা নির্জন এলাকা হিসেবে মনে হবে। ১৯২০ সালের আগে যদি আপনি এখানে আসতেন তাহলে নদীপথে অথবা হাতির পিঠে চড়ে আসতে হতো যা কয়েক স্তাহ সময়ের ব্যাপার। এখানকার মানুষদের নিজস্ব ভাষা, রীতি, হস্তশিল্প, ঐতিহ্য, নৃত্য এবং খাদ্য রয়েছে। চিয়াং মাই ভ্রমণে আসবেন যারা তারা কখনো এখানে ভ্রমণের আনন্দ ভুলবেন না। এখানে মোন, বার্মিজ, শ্রীলঙ্কান এবং লান না থাই এর স্থাপত্যরীতির সংমিশ্রণ ঘটেছে। এখানে বিভিন্ন জিনিসের উপর দেখা যাবে প্রচুর কাঠের খোদাই কাজ ঠিক জটিল সিড়ির মতো।

Social Media