হাইনান দ্বীপ

হাইনান দ্বীপ চীনের দক্ষিণ উপকুলে অবস্থিত। আকারে ছোট হওয়ার কারণে হাইনান হচ্ছে চীনের সবচেয়ে ছোট্ট প্রদেশ।

বেইজিং এর চীনা সরকার হাইনানের কাছাকাছি স্প্রাটলি ও প্যারাসেল দ্বীপসমূহের দাবী করে আসছে কিন্ত্ত বিষয়টি এসোসিয়েশন অব সাউথঈস্ট এশিয়ান নেশন্স এর কয়েকটি দেশের কারণে বিতর্কিত হয়ে আছে।

হাইনান দ্বীপের ভৌগলিক অবস্থান
কিওংঝুউ প্রণালী হাইনানকে বিচ্ছিন্ন করেছে। ভিয়েতনামের টনকিন উপসাগর হাইনান দ্বীপের পশ্চিমে পড়েছে। ঊঝি হচ্ছে হাইনানের সর্বোচ্চ পর্বত।

হাইনান দ্বীপের জলবায়ু
হাইনান দ্বীপে গ্রীষ্মমন্ডলীয় জলবায়ু বিদ্যমান। গড় তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রী সে.। সারাবছর তাপমাত্রা ১৬ ডিগ্রী থেকে ২১ ডিগ্রী সে. এর মধ্যে ওঠানামা করে। গ্রীষ্মকালে জুলাই ও আগস্ট মাস সবচেয়ে গরম, তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রী থেকে ২৯ ডিগ্রী সে. এর মধ্যে বিরাজ করে।

হাইনান দ্বীপের পূর্বাঞ্চল ঘন ঘন ঘূর্ণিঝড় দ্বারা আক্রান্ত হয় এবং ৭০% বৃষ্টিপাত ঘূর্ণিঝড়ের কারণে হয়। অধিকাংশ বন্যা ঘূর্ণিঝড়ে সৃষ্ট এবং এটা হাইনানের অধিবাসীদের জন্য দুর্ভোগ ডেকে আনে।

হাইনানের অর্থনীতি
হাইনানে কৃষিজাত ফসলসমূহ হচ্ছে প্রধান অর্থকরী পণ্য। ২০০৬ সনের জিডিপি ছিল ১২২.৯৬ বিলিয়ন ইউয়ান এবং চীনের জাতীয় অর্থনীতিতে এটি ০.৫% অবদান। ২০০৭ সনে হাইনান দ্বীপের মাথাপিছু আয় ছিল ১৪৬৩১ ইউয়ান।

কিভাবে হাইনান সফরে যাওয়া যায়

হাইনানের আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর হচ্ছে হাইকুউ মেইলান এবং এটি প্রধান ভূমি থেকে প্রায় ২৫ কি.মি. দুরে অবস্থিত।

হাইনানে ভ্রমণ আকর্ষণ
হাইনানের খুবই সুন্দর এবং মনোমুগ্ধকর সমুদ্র সৈকত রয়েছে, ভ্রমণপিয়াসুদের জন্যে রয়েছে সবুজ গাছপালা ও বিশুদ্ধ বাতাস। হাইনানের রাজধানী হাইকুউ তে রয়েছে অনেক দর্শনীয় ঐতিহাসিক স্থান। এটি নারিকেল শহর নামে সুপরিচিত এবং এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বন্দর।

আরামদায়ক বসন্তকাল, সুন্দর দৃশ্যাবলী আর বিখ্যাত সমুদ্রসৈকত হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভ্রমণ আকর্ষণসমূহ।

Social Media